লিবিয়ায় যুদ্ধাবস্থা: দ্রুত দেশে ফিরছেন বাংলাদেশিরা

হাবিবুর রহমান, ঢাকা: লিবিয়ার ত্রিপোলির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে যুদ্ধ অবস্থার মুখে দ্রুত লিবিয়া ছাড়ছেন সেখানে অবস্থানকারী বাংলাদেশিরা। ত্রিপোলি ও আশপাশের শহরগুলোতে থাকা ৬০টি পরিবারসহ মোট পাঁচ হাজার বাংলাদেশিকে সরাতে কাজ করছে সেখানকার দূতাবাস কর্তৃপক্ষ। স্বেচ্ছায় দূতাবাস ও আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) সহায়তা নিয়ে আজ মঙ্গলবার দেশে ফিরেছেন ২৯ বাংলাদেশি। এর আগে ত্রিপোলির বাংলাদেশ দূতাবাসের পক্ষ থেকে স্বেচ্ছায় দেশে ফিরতে আগ্রহীদের জন্য রেজিস্ট্রেশন ব্যবস্থা চালু করা হয়।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন সূত্র জানায়, লিবিয়া থেকে ইস্তানবুল হয়ে ভোর সাড়ে ৫টায় টার্কিশ এয়ারলাইন্সের টিকে-৭১২ ফ্লাইটে ২৯ জন বাংলাদেশি দেশে পৌঁছান। ফিরে আসা কর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইমিগ্রেশনে রাখা হয়েছে এবং তাদের ঠিকানা ভেরিফিকশনের জন্য সংশ্লিষ্ট থানাতে খবর পাঠানো হয়েছে।

ত্রিপোলির বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্রে জানা যায়, স্বেচ্ছায় দেশে ফিরতে আগ্রহীদের মধ্যে আইওএমের মাধ্যমে প্রথম গ্রুপে ৩৫ জন, দ্বিতীয় গ্রুপে ৩৭ জন এবং তৃতীয় গ্রুপে ৩৫ জনসহ ১০৭ জনের টিকিটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বাকিরা ৩ জুলাই এবং ৫ জুলাই দেশে ফেরত আসবেন বলে ধারণা করা যাচ্ছে। এর আগে লিবিয়ায় অবস্থানরত বাংলাদেশিদের নিরাপত্তা এবং প্রয়োজনে দেশে ফিরিয়ে আনতে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও আন্তর্জাতিক অভিবাসী সংস্থা (আইওএম) এর সমন্বয়ে একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক হয়। বৈঠক থেকে লিবিয়াতে থাকা বাংলাদেশিদের নিরাপত্তা বিধান ও প্রয়োজনবোধে ফিরিয়ে আনতে ত্রিপোলির বাংলাদেশ দূতাবাসে তিনটি হটলাইন নম্বর চালু করা ও কন্ট্রোল রুম প্রতিষ্ঠার নির্দেশনা দেওয়া হয়। প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব রৌনক জাহান বলেন, লিবিয়ায় আটকে পড়া বাংলাদেশিদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয়ে সরকার আন্তরিকভাবে কাজ করছে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *