ভোট যুদ্ধের মরশুমে বিপাকে রাহুল

বিপাকে পড়লেন রাহুল গান্ধী। শুধু তাই নয় বিতর্কেও নাম জড়িয়েছে তাঁর। শীর্ষ আদালতের কাছে নিঃশর্ত ভাবে ক্ষমা চাইলেন তিনি। আসলে মোদীকে আক্রমণ করতে গিয়ে, আদলতের রায়ের সাথে চৌকিদার চোর হ্যায় স্লোগানটি তিনি এক করে ফেলেন। এই কারণেই আদালতের কাছে ক্ষমা চাইতে হয় তাঁকে।

এছাড়াও তিনি বুধবার আদালতকে হলফনামা জমা দিয়ে জানান যে সুপ্রিম কোর্ট তাঁর কাছে সর্বোচ্চ। তিনি অনিচ্ছাকৃত ভাবেই আদালতের রায়ের সাথে এই স্লোগানকে মিলিয়ে ফেলেন। এই তিন পাতার হলফনামা রাহুলের আইনজীবী জমা দেন আদালতকে। সেখানে লেখা ছিল যে এক্কেবারে অসাবধানে শীর্ষ আদালতের রায়ের সাথে তিনি এই স্লোগানকে গুলিয়ে ফেলেন। এবং তাঁর জন্য তিনি ক্ষমা প্রার্থী।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি শীর্ষ আদালতের তরফে রায় দেওয়া হয় যে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক থেকে ফাঁস হয়ে যাওয়া নথিপত্রের ভিত্তিতে রাফাল মামলা লড়া যাবে। এরপরেই তিনি বলেন যে শীর্ষ আদালতের রায় অনুযায়ী মোদী চোর। আর মন্তব্য করেই বিপাকে পড়লেন তিনি। রাহুলের বিরুদ্ধে ফৌজদারি আইনে পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি তুলে তাঁকে আদালতে নিয়ে যান বিজেপি নেত্রী মীনাক্ষী লেখি। এদিকে হলফনামায় মামলাটি বন্ধ করে দেওয়ার আর্জি জানান তিনি। তাঁর আবেদনের শুনানি শুক্রবার করবে আদালত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *